fbpx

কালচার-ভালচার

হাইপাররিয়েল জমানায় সিমস, ব্লেড রানার এবং বদ্রিয়ার

আপনি হয়তো ভিডিও গেমস খেলেন বা মুভি দেখেন। কখনও ভাবছেন কি যে এইগুলা আপনার জীবনরে প্রতিনিয়ত কিভাবে আমূল বদলায়ে দিতেছে? ফরাসি দার্শনিক, কালচারাল থিয়োরিস্ট বদ্রিয়াররে সাথে নিয়া সেই ভাবনাই ভাবার চেষ্টা হইছে এই লেখায়।

ট্রেভর নোয়া’র স্মৃতিকথা | পর্ব ২

এপার্টহেইড ছিল আদর্শ  বর্ণবাদ।  শতাব্দির পর শতাব্দি জুড়ে এর বিবর্তন হয়েছিল। এর শুরুটা হয়েছিল ১৬৫২ সালে যখন, ডাচ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি  ‘কেইপ অব গুড হোপ’ অন্তরীপে নোঙ্গর ফেলেছিল। তারা এই জায়গার নাম দেয়  ‘কাপস্টাড’, যা ক্রমে পরিচিত হয় কেপটাউন নামে। কেপটাউন ছিল ইউরোপ আর ভারত যাবার পথে বিশ্রামের জায়গা। ডাচ কলোনিস্টরা স্থানীয়দের নিজেদের আয়ত্ব আনতে আর তাদের দাসত্বে আবদ্ধ করতে  কিছু আইন প্রনয়ন করে। ডাচদের হারিয়ে যখন ব্রিটিশরা  অঞ্চলের দখল নেয় । তখন ডাচরা আরো গভীরে চলে যায়। সেখানে তারা তাদের নিজস্ব ভাষা, রীতিনীতি, ঐতিহ্যর জন্ম দেয়। আর আফ্রিকা মহাদেশ পেয়ে যায় তার একমাত্র সাদা গোত্র ।

ট্রেভর নোয়ার স্মৃতিকথা | পর্ব ১

ট্রেভর নোয়া এই সময়ের সেরা একজন কমেডিয়ান ও বর্নবাদের সমালোচক হিসেবে বিশ্বজুড়ে পরিচিত এবং প্রশংসিত। তার স্মৃতিকথা ‘বর্ন আ ক্রাইমঃ স্টোরিজ ফ্রম আ সাউথ আফ্রিকান চাইল্ডহুড’ নিউইয়র্ক টাইমস বেস্টসেলার, ন্যাশনাল বেস্টসেলারসহ অনেকগুলি বেস্টসেলিং লিস্টে জায়গা করে নেয়। জেমস থার্বার প্রাইজ অফ এমেরিকান হিউমারসহ অনেকগুলি পুরষ্কারও জিতে নেয় বইটা। একইসাথে পাঠকপ্রিয়তা ও সমালোচকদের প্রশংসা পাওয়া বিরল বইগুলির একটা বর্ন আ ক্রাইম। মাদারটোস্টের পাঠকদের জন্যে বইটার ধারাবাহিক  অনুবাদ করছেন আতাউর রহমান সিহাব। প্রতি সপ্তাহে একটা করে পর্ব  প্রকাশ করবে মাদারটোস্ট। আজ থাকলো প্রথম পর্ব

মিম জেনারেশন এবং সিসিফাসের মিথ

মিম (Meme) কালচারটার জন্ম এই শতকে। বিভিন্ন গবেষক অনেকসময় এরে উল্লেখ করছেন কালচারাল ইউনিট হিসেবে। মিম হইতেছে একধরণের পোস্টমর্ডান ফোকলোর যা জনগণের রাজনৈতিক সম্পৃক্ততায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। আমাদের আলোচনা ঠিক এই জায়গায়।

অন দ্য ফেনমেনন অফ বুলশিট জবস। ডেভিড গ্রেবার

জন মেইনার্ড কেইন্স ১৯৩০ সালে প্রযুক্তির এমন উৎকর্ষের ব্যাপারে ভবিষ্যতবাণী  করেছিলেন যে শতাব্দীর শেষ দিকে…

error: